২৮ বছরের বিরতির পর পরমাণু পরীক্ষার কথা ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র

0
20

চীন ও রাশিয়াকে চাপে রেখে ত্রিপাক্ষিক অস্ত্রচুক্তিতে নিয়ে আসতে ২৮ বছরের মধ্যে এই প্রথম পারমাণবিক অস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে আলোচনা করেছেন মার্কিন কর্মকর্তারা।

কংগ্রেসের সাবেক ও বর্তমান কর্মীদের বরাতে ব্রিটিশ দৈনিক গার্ডিয়ান এমন খবর দিয়েছে।

তারা বলছেন, গত ১৫ মে হোয়াইট হাউসে জ্যেষ্ঠ জাতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনা হয়। তবে প্রস্তাবটি সময়ের ওপরই ছেড়ে দেয়া হয়েছে। অর্থাৎ এখন পর্যন্ত সময় নির্ধারণ করা হয়নি।

কংগ্রেসকর্মীরা বলেন, সেখানে কয়েকজন কর্মকর্তা ছিলেন, যারা এটাকে একটি ভয়ঙ্কর অভিপ্রায় বলে আখ্যায়িত করেছেন।

এই আলোচনা নিয়ে শুক্রবার রাতে প্রথম খবর প্রকাশ করে মার্কিন দৈনিক ওয়াশিংটন পোস্ট।

তাতে কয়েকজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তার উদ্ধৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তি করতে ট্রাম্প প্রশাসনের অগ্রাধিকার বাস্তবায়ন করতে যুক্তরাষ্ট্র দ্রুতই পারমাণবিক পরীক্ষা চালাতে পারে।

এ প্রস্তাবকে অতি চলমান আলোচনা বলে আখ্যায়িত করেন আরেক মার্কিন কর্মকর্তা।

রাশিয়া ও চীন কম শক্তিশালী পারমাণবিক পরীক্ষা চালাচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছিলেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন। এরপর যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বৈঠকে বিষয়টি আলোচিত হয় বলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

তবে বৈঠকে পারমাণবিক পরীক্ষা পরিচালনার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানা গেছে।

বৈঠকে পারমাণবিক পরীক্ষা আবার শুরু করা এড়িয়ে রাশিয়া ও চীনের হুমকি মোকাবেলায় অন্যান্য ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সূত্রঃ যুগান্তর

সংবাদ টি ওয়েবসাইটের ডেমো হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে। সম্পূর্ণ কপিরাইট যুগান্তরের।

একটি মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে