রাশিয়ায় নতুন আতঙ্ক!! রক্তচোষা পোকার কামড়ে হাজার হাজার মানুষ অসুস্থ্য।

0
146

নিজস্ব প্রতিবেদন-
এমন একটি বছর 2020 সাল,বছরটি কে পৃথিবীর মানুষ মনে রাখবে চিরকাল। বছরটি মনে‌ হয় মানুষের কৃতকর্মের ফলে আল্লাহর পক্ষ থেকে বিপদ নিয়েই এসেছে। এই বছরটির যেন বিপদের আর শেষ নেই। করোনা, আমফান, নিসর্গ – একের পর এক বিপদে দিশেহারা মানুষ। এর মধ্যে আবার নতুন আতঙ্ক এক ধরণের রক্ত চোষা পোকা, হঠাৎ রাশিয়ার বিস্তীর্ণ এক এলাকায় এই রক্তচোষা পোকার কামড়ে বহু মানুষ অসুস্থ হয়ে হসপিটালে ভর্তি হয়েছেন। বছরের ঠিক এই সময়ে রাশিয়ার কিছু অঞ্চলে পোকার উৎপাত বাড়ে। কারণ এই সময় সেখানে শীতের আদ্রর্তা কিছুটা কম থাকে। কিন্তু এমন রক্ত চোষা পোকার আবির্ভাব এর আগে খুব একটা দেখা যায়নি সেখানে। এই কারণেই ঐ অঞ্চলের মানুষ গুলোর মধ্যে স্বাভাবিকভাবেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

এদিকে রাশিয়ার সরকার করনা ভাইরাসের মোকাবেলায় হিমশিম খাচ্ছে, তার মধ্যে আবার বহু চিকিৎসক রাশিয়ার স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে।
করোনা আক্রান্ত দেশের নিরিখে রাশিয়া এখন তিন নম্বরে রয়েছেন। এমনিতেই রাশিয়ান সরকার প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের ধাক্কা সামলাতে গিয়েই হিমশিম খাচ্ছে। তার মধ্যে আবার নতুন বিপদ! এমন পোকার উৎপাত এই প্রথম। এই পোকা অনেক বেশি বিষাক্ত। মানুষের শরীরে কামড়ানোর ফলে ত্বক ভেদ করে হাড়েও বিষ ছড়িয়ে পড়ছে। এই পোকার কামড়ে বেশ কিছু আক্রান্তের শরীরে এনসেফালাইটিস দেখা দিয়েছে। সার্বিয়ার এপিডেমওলজি সেন্টার জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ১৭ হাজার মানুষকে কামড়িয়েছে এই পোকা। যার মধ্যে প্রায় সাড়ে ৪ হাজার শিশু রয়েছে। এদের  মধ্যেই পোকা কামড়ানোর পর হাড়ের সমস্যা দেখা দিয়েছে।

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে রাশিয়ার বেশিরভাগ হাসপাতালেই এখন রোগীদের ভিড়। তার মধ্যে পোকা কামড়ানো ব্যক্তিরাও হাজির হচ্ছেন সেখানে। যার ফলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের জন্য চিকিৎসা সেবা দিতে চরমভাবে হিমশিম খেতে হচ্ছে।